কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক বার্তা প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।। সম্মানিত ভিজিটর ওয়েবসাইটে যদি কোন অকার্যকর লিঙ্ক দেখেন তাহলে অনুগ্রহ করে "Contact Menu" এর মাধ্যমে জানান।। জাযাক আল্লাহ খাইরান!!

ইতিকাফ সংক্রান্ত একটি ভুল ধারণা

প্রশ্ন: যদি এলাকার কেউ ইতিকাফে না বসে তাহলে কি পুরো এলাকাবাসী গুনাগার হবে? আর কেউ যদি বসে তাহলে কি পুরো এলাকাবাসী তার সওয়াব লাভ করবে? উত্তর: আমাদের দেশে মনে করা হয় যে, সমাজের পক্ষ থেকে এক ব্যক্তিকে অবশ্যই ইতিকাফে বসতে হবে তা না হলে সবাই গুনাহগার হবে। কিন্তু এ ধারণা মোটেই ঠিক নয়। কারণ, ইতিকাফ হল একটি সুন্নত ইবাদত। যে ...

Read More »

হারাম উপার্জন করে এমন ব্যক্তির উপহার গ্রহণ বা তার বাড়িতে দাওয়াত খাওয়ার বিধান

প্রশ্ন: ক. সুদী ব্যাংকে চাকরীজীবি তার আয়ের টাকা দিয়ে কিছু উপহার দিলে কি সেটা নেয়া জায়েয হবে? খ. হারাম অর্থ উপার্জন করে এমন ব্যক্তির বাড়িতে কি দাওয়াত খাওয়া জায়েয হবে? উত্তর: হারাম সম্পদ দু প্রকার। যথা: 🔸 ১) মূল সম্পদটাই হারাম। যেমন, চুরি-ডাকাতি বা ছিনতাই করা করা জিনিস বা টাকা পায়সা, সুদ ও ঘুষের মাধ্যমে প্রাপ্ত টাকা ইত্যাদি। কেউ যদি সরাসরি ...

Read More »

রোযা রেখে হারাম বা অশ্লীল কথাবার্তা উচ্চারণ করলে কি ছিয়াম নষ্ট হবে?

উত্তরঃ আমরা আল্লাহ্‌ তা’আলার নিম্ন লিখিত আয়াত পাঠ করলেই জানতে পারি ছিয়াম ফরয হওয়ার হিকমত কি? আর তা হচ্ছে তাক্বওয়া বা আল্লাহ্‌ ভীতি অর্জন করা ও আল্লাহ্‌র ইবাদত করা। আল্লাহ্‌ বলেন, ]يَاأَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا كُتِبَ عَلَيْكُمْ الصِّيَامُ كَمَا كُتِبَ عَلَى الَّذِينَ مِنْ قَبْلِكُمْ لَعَلَّكُمْ تَتَّقُونَ[ হে ঈমানদারগণ! তোমাদের উপর ছিয়াম ফরয করা হয়েছে, যেমন ফরয করা হয়েছিল তোমাদের পূর্ববর্তীদের উপর। ...

Read More »

রমজান মাসে ওষুধ খেয়ে ঋতুস্রাব বন্ধ রাখার হুকুম কি?

উত্তর: হজ্জ ও উমরা আদায়, রামাযান মাসে রোজা রাখা, রমাযানের শেষ দশকে ইবাদত-বন্দেগী করা বা অন্য কোন কল্যাণময় কাজের উদ্দেশ্যে যদি ওষুধ খেয়ে ঋতুস্রাব বিলম্বিত করা হয় তাহলে শরীয়তের দৃষ্টিতে এতে কোন সমস্যা নেই যদি তাতে স্বাস্থ্যগত কোন ক্ষতি না হয়। স্বাস্থ্যগত ক্ষতি হলে তখন তা করা বৈধ হবে না। তাই অভিজ্ঞ ও বিশ্বস্ত চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তা করা উচিৎ। ...

Read More »

এক ব্যক্তি ঘুম থেকে উঠে সেহেরী খেল। অতঃপর জানতে পারল যে, তাঁর খাওয়াটা ফজরের আযানের পর হয়েছে

প্রশ্নঃ এক ব্যক্তি ঘুম থেকে উঠে সেহেরী খেল। অতঃপর জানতে পারল যে, তাঁর খাওয়াটা ফজরের আযানের পর হয়েছে। সুতরাং তাঁর রোযা কি শুদ্ধ হবে? উত্তরঃ আযান সঠিক সময়ে হয়ে থাকলে এবং সে আযান হয়ে গেছে—এ কথা না জানলে তাঁর রোযা শুদ্ধ। কারণ অজান্তে বা ভুলে অনিচ্ছাকৃতভাবে পানাহার করে ফেললে রোযার ক্ষতি হয় না। মহানবী (সঃ) বলেছেন, “যে রোযাদার ভুলে গিয়ে ...

Read More »

স্বর্ণ বা ক্যাশ টাকার যাকাত

প্রশ্নঃ ব্যবহারকৃত স্বর্ণালংকারে কি যাকাত দিতে হবে, যদি তা নিসাব পরিমাণ হয়? *উত্তর* ঃ যাকাত দিতে হবে। ✅ আবদুল্লাহ ইবনু শাদ্দাদ ইবনুল হাদ (রহঃ) সূত্রে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমরা *নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর স্ত্রী ‘আয়িশাহ্ (রাঃ)-এর নিকট গেলে তিনি বললেন, একদা রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমার কাছে এসে আমার হাতে রূপার বড় আংটি দেখতে পেয়ে জিজ্ঞেস করলেনঃ হে ‘আয়িশাহ! এটা ...

Read More »

সেজদার আয়াত তেলাওয়াতের সময় সেজদা দেয়ার জন্য কি পবিত্রতা শর্ত

প্রশ্ন:-১ সেজদার আয়াত তেলাওয়াতের সময় সেজদা দেয়ার জন্য কি পবিত্রতা শর্ত? প্রশ্ন:-২ রেকর্ডকৃত তেলাওয়াতের সময় সেজদার আয়াত শুনলে কি সেজদা দিতে হবে? প্রশ্ন:৩ মোবাইল থেকে কুরআন খতম করছি কিন্তু সেজদার আয়াতগুলো চিনতে না পারায় কোথাও সেজদা দেয়া হয় নি। এখন কী করণীয়? —————————– উত্তর: ১) 🔰 সেজদার আয়াত তেলাওয়াত করে সেজদা দেয়ার জন্য ত্বাহারাত বা পবিত্রতা শর্ত নয়। সুতরাং ওযু না থাকলেও ...

Read More »

রামাযান মাসকে কুর’আন নাজিলের মাস বলা হয় কেন? এই মাসের বাইরে কি কুর’আন নাজিল হয় নি?

উত্তর: আল্লাহ তাআলা বলেন: شَهْرُ رَمَضَانَ الَّذِي أُنزِلَ فِيهِ الْقُرْآنُ هُدًى لِّلنَّاسِ وَبَيِّنَاتٍ مِّنَ الْهُدَىٰ وَالْفُرْقَانِ “রমযান মাস হল সে মাস, যাতে নাযিল করা হয়েছে কোরআন, যা মানুষের জন্য হেদায়েত এবং সত্যপথ যাত্রীদের জন্য সুষ্পষ্ট পথ নির্দেশ আর ন্যায় ও অন্যায়ের মাঝে পার্থক্য বিধানকারী।” (সূরা বাকারা: ১৮৫) এই আয়াতে আল্লাহ তাআলা মাহে রামাযানকে কুরআন নাজিলের মাস হিসেবে বর্ণনা করেছেন। এর ...

Read More »

লাইলাতুল কদরের দোয়া

🕋লাইলাতুল কদরের দোয়া আরবি-বাংলা অনুবাদ🕋 وَعَنْ عَائِشَة رَضِيَ اللهُ عَنْهَا، قَالَتْ : قُلْتُ: يَا رَسُولَ اللهِ، أَرَأيْتَ إِنْ عَلِمْتُ أَيُّ لَيلَةٍ لَيْلَةُ القَدْرِ مَا أَقُوْلُ فِيهَا ؟ قَالَ: «قُولِي: اَللهم إنَّكَ عَفُوٌ تُحِبُّ العَفْوَ فَاعْفُ عَنّي». رواه الترمذي، وقال: حديث حسن صحيح আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা হতে আরও বর্ণিত, তিনি বলেন, একদা আমি নিবেদন করলাম, হে আল্লাহর রসূল! আপনি বলুন, যদি ...

Read More »

ঋতুবতি মহিলাগণ কিভাবে লাইলাতুল কদরে ইবাদত করবে??

মহিলাদের মাসিক ঋতুস্রাব কদর রাত পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধক নয়। তাই ঋতুবতি মহিলাগণ এ রাতে নামায, কুরআন তিলাওয়াত ও কাবা শরীফের ত্বওয়াফ ছাড়া অন্যান্য সকল প্রকার ইবাদত করতে পারে। যেমন,বেশি বেশি দরুদে ইব্রাহীম পাঠ করা, তাসবীহ, যিকর-আযকার, যেমন, “লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ”, “আল্ হামদু ল্লিল্লাহ” “সুবহানাল্লাহ”, “আল্লাহুআকবার” “আস্তাগফিরুল্লাহ”, “লা হাওলা ওয়ালা কুউআতা ইল্লা বিল্লাহ”। দুআ-মুনাজাত, বিশেষ করে “আল্লাহুম্মা ইন্নাকা আফুউন তুহিব্বুল্ আফওয়া ...

Read More »

ঋতুবতী মহিলার জন্য কী কী কাজ করা বৈধ আর কী কী করা বৈধ নয়?

🔰 (ক) ঋতুবতী মহিলার সাথে সহবাসে লিপ্ত হওয়া হারাম: এ কথার দলীল, আল্লাহ তা’আলা বলেছেনঃ يسألونَكَ عَنْ الْمَحِيْضِ قُلْ هُوَ أذىً فَاعْتَزِلُوْا النِّسَاءَ فِيْ الْمَحِيْضِ وَلاَ تَقْرَبُوْهُنَّ حَتَّى يَطْهُرْنَ ، فَإِذَا تَطَهَّرْنَ فَأْتُوْهُنَّ مِنْ حَيْثُ أَمَرَكُمُ اللهُ ،إنَّ اللهَ يُحِبُّ التَّوَّابِيْنَ وَ يُحِبُّ الْمُتَطَهِّرِيْنَ “আর তারা তোমার কাছে জিজ্ঞাসা করে হায়েজ সম্পর্কে। বলে দাও, এটা অপবিত্র। কাজেই তোমরা হায়েয অবস্থায় স্ত্রী ...

Read More »

সন্তানকে দুগ্ধদানকারীনী কি রোযা ভঙ্গ করতে পারবে? ভঙ্গ করলে কিভাবে কাযা আদায় করবে? নাকি রোযার বিনিময়ে খাদ্য দান করবে?

উত্তরঃ ===== দুগ্ধদানকারীনী রোযা রাখার কারণে যদি সন্তানের জীবনের আশংকা করে অর্থাৎ রোযা রাখলে স্তনে দুধ কমে যাবে ফলে শিশু ক্ষতিগ্রস্থ হবে, তবে মায়ের রোযা ভঙ্গ করা জায়েয। কিন্তু পরবর্তীতে তার কাযা আদায় করে নিবে। কেননা এ অবস্থায় সে অসুস্থ ব্যক্তির অনুরূপ। যার সম্পর্কে আল্লাহ্‌ বলেন, وَمَنْ كَانَ مَرِيضًا أَوْ عَلَى سَفَرٍ فَعِدَّةٌ مِنْ أَيَّامٍ أُخَرَ -আর যে লোক অসুস্থ ...

Read More »

ফিতরা প্রদানের সময়সীমা ও বণ্টন পদ্ধতি

আলহামদুালল্লাহ, ওয়াস সালাতু ওয়াস সালামু আলা রাসূলিল্লাহ, আম্মা বাদঃ ঈদের নামাযের পূর্বে ফিতরা প্রদান করা যেমন ইসলামের একটি সুন্দর বিধান, তেমন তা সঠিক সময়ে ও সঠিক নিয়মে বণ্টন করাও গুরুত্বপূর্ণ বিধান। কিন্তু দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ফিতরা বণ্টনের নিয়ম ভিন্ন ভিন্ন লক্ষ্য করা যায়। তন্মধ্যে একটি বহুল প্রচলিত নিয়ম হচ্ছে: লোকেরা তাদের ফিতরা মসজিদের ইমাম কিংবা গ্রামের সর্দারের কাছে ঈদের নামাযের ...

Read More »

আহলুল ইলমদের দৃষ্টিতে- “মানহাজ”

আসসালা-মু ‘আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লা-হি ওয়া বারাকা-তুহু। এই পোস্টের বিষয়বস্তু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যা হলো আক্বীদা এবং মানহাজ। কাজেই ধৈর্যসহকারে পড়ার অনুরোধ রইলো। : আক্বীদা মানে বিশ্বাস বা creed বা belief system. আর মানহাজ মানে methodology বা চলার পথ। আভিধানিকভাবে মানহাজ মানে চলার পথ। শরী’আহ-এর পরিভাষায় দ্বীনের ক্ষেত্রে সলফে-সলিহীনগণের অনুসৃত পথে চলার নামই মানহাজ, যাকে আমরা বলে থাকি সলফে-সলিহীনগণের মানহাজ অথবা সালাফী ...

Read More »

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ কিছু আহলেহাদীছ  ক্বওমী ও আলিয়া মাদরাসার নাম ও ঠিকানা

ঢাকা জেলা: (৮টি)√ _________________ ১. মাদরাসা মুহাম্মাদিয়া আরাবিয়া, উত্তর যাত্রাবাড়ি, ঢাকা। ২. মাদরাসাতুল হাদীছ , নাজিরবাজার, ঢাকা। ৩. মাদরাসা দারুস সুন্নাহ মিরপুর, ঢাকা। ৪. মা,হাদুত্ তারবিয়্যাহ ওয়াস সাক্বাফাহ আল-ইসলামিয়্যাহ, কাজীবাড়ী,উত্তরখান,উত্তরা,ঢাকা৷ ৫. ধলেশ্বর ইসলামিয়া ও হাফিজিয়া মাদরাসা। ৬. শরীফবাগ কামিল মাদরাসা, ধামরাই, সাভার, ঢাকা। (আলিয়া সিলেবাস) ৭. মোহাম্মাদপুর মডেল মাদরাসা, মোহাম্মাদপুর, ঢাকা। ৮. রহীমুল্লাহ মাদরাসা, বেরাঈদ, ঢাকা। নরসিংদী জেলা: (২টি)√ _____________________ ...

Read More »

ঢাকা শহরের যে সকল স্থানে মহিলাদের ছালাত আদায়ের ব্যবস্থা রয়েছে

ঢাকার নিম্নোক্ত স্থানসমূহে মহিলাদের ছালাত আদায়ের ব্যবস্থা রয়েছে: ১. ঢাকা নিউ মার্কেট মসজিদ ২. রাইফেলস স্কয়ার (জিগাতলা) ৩. ইস্টার্ন মল্লিকার ছাদে ৪. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদ ৫. রাপা প্লাজার ৫ম তলায় জয়ীতার শো-রুম ও মার্কেটের ছাদ (ধানমন্ডি ২৭) ৬. সোবহানবাগ জামে মসজিদ (ধানমন্ডি ২৭) ৭. গাউছিয়া মার্কেটের নিচ তলায় (ধানমন্ডি হকারস এর উল্টোদিকে) ৮. চাঁদনি চকের ৩য় তলায় (নিউমার্কেটের উল্টোদিকে) ...

Read More »

সহীহ আক্বীদা ও আমলের বই প্রাপ্তিস্থান সমূহের তালিকা

সময়ের সাথে সাথে সাধারণ মানুষের মাঝে ইসলাম সম্পর্কে সচেতনতা ও আগ্রহ সৃষ্টি হচ্ছে। সেই সাথে মানুষের মাঝে আক্বীদা ও আমলের পরিবর্তন আসছে। আগের সহীহ আক্বীদা ও আমলের প্রকাশনী ও লাইব্রেরী পাওয়া দুষ্কর ছিলো, তা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। সেই সাথে দেশের বিভিন্ন জায়গায় লাইব্রেরী গড়ে উঠছে। এর ফলে বইয়ের প্রচার, প্রসার ও বিক্রি বাড়ছে। যা একটি ইতিবাচক বিষয়। তবুও দেশের বিভিন্ন জায়গায় ...

Read More »

সারা বিশ্বে বর্তমান ও বিগত শতাব্দীর কিছু আহলুল ইলমদের তালিকা

আসসালা-মু ‘আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লা-হি ওয়া বারাকা-তুহু। সমস্ত নবী-রসূলগণের পর আল্লাহর সৃষ্টির সেরা হলেন উলামাগণ। তবে অবশ্যই বিদআতি, হিজবি, ভ্রান্ত ও পথভ্রষ্ট আলেম নয়। বরং আহলুস সুন্নাহর আলেম-উলামা, যারা মানহাজ আস-সালাফিয়্যাহ এর উপর প্রতিষ্ঠিত এবং মানুষের জন্য হিদায়াতের দিক-নির্দেশক। তারাই সৃষ্টির সেরা ও আল্লাহর সবচেয়ে প্রিয় বান্দা এবং আল্লাহর কাছে তাদের মর্যাদা সবচেয়ে বেশি। কারণ তারাই মানুষের মাঝে সবচেয়ে বেশি জ্ঞানী ...

Read More »

সহীহ আক্বীদার কিছু আলোচকদের নাম

১) শায়খ ডাঃ জাকির আব্দুল করিম নায়েক=Shaikh Dr Zakir Naik ২) শায়খ মতিউর রহমান মাদানী (হাফেজাহুল্লাহ)=Shaikh Motiur Rahman Madani ৩) শায়খ মুজাফফর বিন মুহসিন=Shaikh Muzaffor Bin Mohosin ৪) শাইখ আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসূফ=Shaikh Abdur Razzak Bin Yousuf ৫) শাইখ আমানুল্লাহ বিন ইসমাইল মাদানী=Shaikh Amanullah Madani ৬) শাইখ মুফতি মোহাম্মাদ জাকারিয়া=Shaikh Mufti Mohammad Jakariya ৭) শাইখ শাহীদুল্লাহ খান মাদানী=Shaikh Shahidullah Khan ...

Read More »

ইলমের কারণে আমলকারীর প্রতিদান বাড়ে

ইলমের দ্বারা মুমিনের প্রতিদান বড় হয়। তার নিয়ত হয় পরিশুদ্ধ। ফলে সে নিজ আমল করতে পারে সুন্দর উপায়ে। মানুষ ইলমের চেয়ে মালের প্রতি বেশি আকৃষ্ট হয়। অথচ মালের চেয়ে ইলমের মর্যাদা অনেক বেশি। এ ব্যাপারে শরীয়ত আমাদেরকে কয়েকটি শ্রেণীতে বিভক্ত করেছে। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মানুষকে চার ভাগে বিভক্ত করেছেন। এদের মধ্যে দুই দল হবে নাজাত বা মুক্তিপ্রাপ্ত। তারা হলেন ...

Read More »
error:

Powered by Dragonballsuper Youtube Download animeshow